Thursday 10 June 2021

সুমন্ত আসলামের বই - ভূতবন্ধু

 


সুমন্ত আসলামের ছোটদের জন্য গল্পের বই ‘ভূতবন্ধু’।

ভূতবন্ধু, ফাঁকিবাজ, মধ্যরাতের আতঙ্ক, সুমর্মির শাস্তি, ভয়ঙ্কর জন্মরাত, কাঁঠাল চোর, জাদুর ইঁদুর, দুষ্টু ছেলেগুলোর আজ মন খারাপ – এই সাতটি ছোট ছোট গল্প নিয়ে ৬৪ পৃষ্ঠার ছোট্ট বই।

ভূতবন্ধু গল্পটি অলৌকিক ভূতের গল্প। জর্জের একটি পা নেই। ট্রাকের ধাক্কায়। তারপর থেকে ক্রাচে ভর দিয়ে চলতে হয়। হঠাৎ দেখা গেলো একটা ভূত এসে তার সব কাজ করে দিচ্ছে। তাকে মাঠে নিয়ে যাচ্ছে ফুটবল খেলা দেখতে। বাসায় তার সব কাজ করে দিচ্ছে। ভূতের নাম জীম। একদিন জীম চলে যায় – কারণ সে জানে জর্জের বাবা কবিরাজ নিয়ে আসবে ভূত তাড়ানোর জন্য। শিশুতোষ গল্প কি এরকম হতে হয়? শৈশবে এই গল্প পড়তে কেমন লাগতো আমি জানি না।

ফাঁকিবাজ গল্পটি একজন গৃহশিক্ষকের গল্প। নিয়াজ সাইফুল সাহেবের ছেলে-মেয়েকে পড়ানোর জন্য যায়। তারা দুষ্টু খুব। নিয়াজ তাদেরকে খেলার ছলে লেখাপড়া করাতে পারবে ভেবে বাইরে বেড়াতে নিয়ে যায়। সেখানে বেলুনওয়ালার কাছে কতটা বেলুন আছে গুনতে বলে। বাচ্চারা ধরে ফেলে যে সে অংক শেখানোর চেষ্টা করছে। বহুল প্রচলিত কৌতুক আছে এরকম।

মধ্যরাতের আতঙ্ক গল্পটি ভূতের গল্প। রুদ্র স্বপ্ন দেখে। ঘরের ভেতর সাপ ঢুকে যাচ্ছে, তারপর তেলাপোকায় ঘর ভরে যাচ্ছে। তারপর দেখে কাটা হাত, বিভৎস সব দৃশ্য। এসব হরর মুভিতে হরদম দেখা যায়। শিশুদের জন্য কতটুকু উপযোগী সেটাই ভাবার বিষয়।

সুমর্মির শাস্তি গল্পটি একদম সরল। সুমর্মি খুব ভালো মেয়ে। তার বাবার বাধ্য মেয়ে। একদিন তার বাবা তাকে বসিয়ে রাখেন। এটাই তার শাস্তি। কেউই বুঝতে পারে না কেন সুমর্মিকে শাস্তি দেয়া হয়েছে। শেষে জানা গেলো সুমর্মি যে পড়ার বইয়ের পাশাপাশি গল্পের বইও পড়ে সেটা তার বাবাকে জানায়নি – সে কারণে বাবার খুব অভিমান হয়েছে। বাবা তার জন্য আরো অনেক গল্পের বই কিনে নিয়ে আসেন।

ভয়ঙ্কর জন্মরাত গল্পটি জর্জ ও তার বন্ধুদের গল্প। জর্জের বন্ধুরা জর্জকে না জানিয়ে মধ্যরাতে বার্থ ডে উইশ করার পরিকল্পনা করে। জর্জ এতে খুব ভয় পায়।

কাঁঠাল চোর গল্পটি সম্ভবত গোয়েন্দা গল্প। স্কুলের গাছ থেকে কেউ কাঁঠাল চুরি করেছে। সেই কাঁঠাল চোর ধরার জন্য উঠতি গোয়েন্দা জর্জের ডাক পড়ে। জর্জ একটু বুদ্ধি করেই কাঁঠাল চোর ধরে ফেলে। গোয়েন্দার বুদ্ধি দেখলে ফেলুদা কিংবা শার্লক হোম্‌স অবাক হয়ে যাবে। আর গোয়েন্দা গল্পের লেখকরা গল্প লেখা ছেড়ে দিতে চাইবেন।

জাদুর ইঁদুর গল্পটিকে লেখক বলছেন বিদেশি গল্পের ছায়া অবলম্বনে লেখা হয়েছে। ইঁদুর বিড়াল পশুপাখি ইত্যাদিরা কথা বলে এখানে। একটি বিড়াল একটি বাড়িতে ঢুকে পড়ে সবাই মানা করা সত্ত্বেও। সেখানে সে কাচের বয়াম থেকে সুস্বাদু ইঁদুর খায়। তাতে তার কান বড় হয়ে যায়। একজন জাদুকর থাকে। সেই জাদুকর আবার মন্ত্র দিয়ে তার কান ছোট করে দেয়।

দুষ্টু ছেলেগুলোর আজ মন খারাপ – এটা স্কুলের অঙ্কস্যারের গল্প। ক্লাস সিক্সের নতুন অঙ্কস্যার কীভাবে যেন সবাইকে অংক শিখিয়ে ফেলেছেন। সবাই অঙ্কে ভালো করতে শুরু করে। তিনি আবার সবার মনও ভালো করে দেন। তিনি একদিন দেখেন ছেলেদের মন খারাপ। কারণ তাদের খেলার জায়গায় বড় দালান হয়ে যাচ্ছে।

এই গল্পগুলি পড়ে মনে হচ্ছে – শিশুদের জন্য লেখা যেসব গল্প পড়ে যে কোন বয়সের পাঠকই মজা পায় – এসব গল্পের একটিও সেরকম নয়।

ভূত বন্ধু (১০/৬/২০২১) ।। প্রকাশক – অনুপম প্রকাশনী ।। প্রথম প্রকাশ – ফেব্রুয়ারি ২০১১।।


No comments:

Post a Comment

Latest Post

Hendrik Lorentz: Einstein's Mentor

  Speaking about Professor Hendrik Lorentz, Einstein unhesitatingly said, "He meant more to me personally than anybody else I have met ...

Popular Posts