Monday 20 August 2018

গাধা বৃত্তান্ত




গাধারা কীভাবে পানি পান করেন আমি ঠিক জানি না। তবে ছোটবেলা থেকে শুনে আসছি উনারা নাকি ঘোলা পানি পান করেন। উনাদের যদি পরিষ্কার পানি দেয়া হয় তাহলেও নাকি উনারা আগে পা দিয়ে ঘেঁটে পানি ঘোলা করেন এবং পানি সন্তোষজনক পর্যায়ের ঘোলা হওয়ার পরে সেই ঘোলা পানি পান করেন। আমি প্রকৃতিতে কিছু গাধা দেখেছি বটে, কিন্তু যখন দেখেছি তারা ভার বহন করতে ব্যস্ত ছিলেন। তাদের মনিবেরা কীভাবে তাদের পানি পান করান তা দেখার সুযোগ আমার হয়নি।

ঘোলা পানির ব্যাপারটা সঠিক হলে গাধার মালিকেরা মনে হয় গাধাদের ঘোলা পানিই সরবরাহ করে থাকেন। প্রায়ই নাগরিকেরা ওয়াসার পানি ঘোলা বলে অনুযোগ করে থাকেন। নগর কর্তৃপক্ষ যদি নাগরিকদের ঘোলা পানি সরবরাহ করে থাকেন, তাহলে নাগরিকরা কী? এই প্রশ্নটি কি যথেষ্ট সৃজনশীল প্রশ্ন হয়েছে? নাকি এটাকে নৈব্যক্তিক প্রশ্ন ধরে নিয়ে এর চারটি সম্ভাব্য উত্তর দিয়ে দিতে হবে? সম্ভাব্য উত্তরগুলি যদি এরকম হয়

ক) গাধা 
খ) গর্দভ 
গ) রাসভ 
ঘ) সুশীল ব্যক্তি 

- তাহলে কেমন হয়?

গাধার কথা বলতে গিয়ে সৃজনশীল প্রশ্ন আর নৈব্যক্তিক প্রশ্নের ব্যাপারটা চলে আসার কারণ কাকতালীয়। আমাদের দেশের পরীক্ষাপদ্ধতি এবং শিক্ষাব্যবস্থা যারা সামলান তাদের সাথে গাধাদের সম্পর্ক থাকতেই পারে না।

হুমায়ূন আজাদ কয়েকবার বলেছিলেন 'মানুষ সিংহের প্রশংসা করে, কিন্তু গাধাকে পছন্দ করে'। মানুষ বুদ্ধিমান প্রাণী বলেই গাধাকে পছন্দ করে। বর্তমানে আন্তর্জাতিক বাজারে সিংহের মাংসের কোন চাহিদা নেই। বাঘের চামড়ার চাহিদা থাকলেও সিংহের চামড়ারও কোন চাহিদা নেইসিংহ নামেই পশুর রাজা। বলা চলে পশুদের প্রেসিডেন্ট। মাঝে মাঝে ডাক দেয়া ছাড়া সিংহের তেমন কোন ভূমিকা নেই। ছোটবেলা থেকেই দেখে আসছি শিশুতোষ গল্পগুলোতেও সিংহ শুধু ইঁদুরের সাথে বীরত্ব দেখাতে পারে। কিন্তু গাধার চামড়ার এখন চাহিদা কেমন জানেন? এক কেজি গাধার চামড়ার দাম প্রায় ৫০০ ডলার বা চল্লিশ হাজার টাকা। চায়নিজরা ওষুধ বানানোর জন্য পৃথিবীর প্রায় সব গাধার চামড়া কিনে নিচ্ছে। সাপের মতো গাধারও যদি একবার চামড়া চলে গেলে আবার চামড়া গজাতো তাহলে গাধার মালিকেরা গাধাদের জ্যন্ত অবস্থায় চামড়া ছাড়িয়ে বিক্রি করে দিতো।



প্রাইমারি স্কুলের প্রতিটি ক্লাসে প্রতিটি শিক্ষকের কাছ থেকে গাধার সম্মান পেয়েছি। হাইস্কুলেও একই অবস্থা। কলেজে গাধা সম্বোধন পাওয়ার জন্য হলেও যতটুকু চোখে পড়া দরকার ততটুকুও চোখে পড়িনি কোন শিক্ষকের। স্কুলের ইংরেজি ক্লাসে উচ্চস্বরে শিখেছিলাম গাধা ইংরেজি অ্যাস (ass)সেই ইংরেজি জ্ঞান নিয়ে বিদেশে এসে একজনকে বীরত্ব দেখিয়ে 'তোমার গাধা তোমার সব সমস্যার সমাধান করে দেবে' বোঝানোর জন্য লিখলাম 'your ass will solve your problems'। 

কিন্তু যে Assকে আমি গাধা মনে করেছিলাম সেই Ass যে বদলে গেছে তার খবর তো আমি রাখিনি। আমি সহজ সরল গাধার মতো শব্দের সরলার্থ করলেই যে সবাই তা মেনে নেবে তা তো নয়। যার উদ্দেশ্যে লেখা সে ভাবলো আমি তার শরীরের একটা বিশেষ অংশের প্রতি ইংগিত করেছি। আমি যে তাকে বিনাস্বার্থেই সাহায্য করতে চেয়েছি তা সে বুঝতেই চাইলো না।

আপনি যদি এ লেখার শুরু থেকে এপর্যন্ত পড়ে থাকেন তাহলে বুঝতে পারছেন এই লেখাটার নির্দিষ্ট কোন লক্ষ্য নেই। এটা আর কিছু নয় - আমাদের শিক্ষার প্রতিফলন।

6 comments:

  1. Gadhar somaj babostha jothesto mojbut noi...tai tader kotha bola hole tara kichu ta songkuchito hoye bole.....pase loke kichu bole..hahaha.

    ReplyDelete
    Replies
    1. গাধাদের সমাজব্যবস্থা সম্পর্কে আমার তেমন কোন ধারণা নেই। তোমার আছে দেখছি। :)

      Delete
  2. hello sir! ajkei prothom apnar blog er puro ekta lekha porlam!
    blog er design ta sundor hoise :D

    ReplyDelete
    Replies
    1. অনেক ধন্যবাদ শাওন ইন্দ্রজিৎ।

      Delete
  3. hello sir! ajkei prothom apnar blog porlam. blog er design ta khub sundor hoise.

    ReplyDelete
    Replies
    1. অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

      Delete

Latest Post

Memories of My Father - Part 6

  The habit of reading books was instilled in us from a young age, almost unknowingly. There was no specific encouragement or pressure for t...

Popular Posts